IND vs AUS: বড় চোট থাকলে তো দলে থাকত না, শ্রেয়সের ফিটনেস নিয়ে সোজাসাপটা জবাব নির্বাচক প্রধানের

এশিয়া কাপ জিতেছে ভারত। শ্রীলঙ্কাকে এশিয়া কাপের সবচেয়ে কম রানে আটকে চনমনে মেজাজে ভারতীয় বোলিং অ্যাটাক। এই টুর্নামেন্টে ভারত শুধুমাত্র কাপ জেতেনি দলে থাকা বিভিন্ন সমস্যার সমাধান হয়েছে। চোঠ সারিয়ে দলে ফিরে এসে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছেন জসপ্রীত বুমরাহ ও কে এল রাহুল। এছাড়াও এই দলে জায়গা পেয়েছিলেন শ্রেয়স আইয়ার। দীর্ঘ কয়েক মাস মাঠের বাইরে থাকার পর এশিয়া কাপের দলে জায়গা পেয়েছিলেন তিনি। তবে একটা বেশি ম্যাচ তিনি খেলতে পারেননি। প্রথম ম্যাচ খেলার পরে হালকা চোট লাগে তাঁর। জাতীয় নির্বাচক কমিটি মনে করছে বিশ্বকাপের আগে রান করার জন্য যথেষ্ট সময় পাচ্ছেন তিনি।

পিঠের চোটের কারণে মার্চ মাস থেকে ক্রিকেট থেকে দূরে ছিলেন শ্রেয়স। তবে চোট সারিয়ে এশিয়া কাপের দলে জায়গা করে নেন তিনি। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে তাকে দলেও রাখা হয়। পাক বোলারদের বিরুদ্ধে সেই ম্যাচে ভারতীয় টপ অর্ডার ব্যর্থ হওয়ার পর আইয়ার নিজের দায়িত্ব পালন করছিলেন। তবে খেলা চলাকালীন তিনি ফের হালকা একটি চোট পান। তারপরেই পুলশট মারতে গিয়ে আউট হয়ে যান তিনি।

এই চোটের কারণে এশিয়া কাপের বাকি ম্যাচগুলো খেলা হয়নি আইয়ারের। তবে শুরু হতে চলা অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের জন্য দলে নেওয়া হয়েছে তাকে। এই বিষয়ে প্রধান নির্বাচক অজিত আগারকর বলেন, ‘এশিয়া কাপের ফাইনাল এর আগেও সেই পুরোদমে অনুশীলন করেছে। এখন ওকে ফিট বলে ধরা হচ্ছে। দীর্ঘ কয়েক মাস চোট সারানোর জন্য অনেক পরিশ্রম করেছে শ্রেয়স। এশিয়া কাপের সময় ওর যে চোটটা লাগে সেটা বড় কিছু নয়।’

সম্প্রতি ভারতের তারকা স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন তাঁর ইউটিউব চ্যানেলে শ্রেয়স আইয়ারের পক্ষেই কথা বলেছেন।‌ তিনি বলেন, ‘শ্রেয়স, কেএল রাহুলের মতো গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার এই দলে। স্পিন বোলারদের মোকাবিলা করার জন্য ভারতীয় দলের অন্যতম সেরা ব্যাটার আইয়ার। চার নম্বর পজিশনে খেলার জন্য একদম আদর্শ। চার নম্বর পজিশানে ও যখনই ব্যাট করেছে তখনই দলের জেতার জন্য বড় অবদান রেখে গেছে। যদি ও খেলার জন্য সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠে তাহলে চার নম্বর পজিশনে ওর জায়গা নিয়ে কোন তর্ক হওয়া উচিত নয়।’ তবে শ্রেয়স আইয়ারের অনুপস্থিতিতে পূর্ণ লাভ তুলেছেন তরুণ ব্যাটার ইশান কিষান। দলের হয়ে রানও সংগ্রহ করেছেন তিনি। চোট সারিয়ে সেই জায়গা দখলের জন্য আইয়ারকে কিছুটা লড়াই করতে হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *